বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ- ভিডিও ধারণ, আটক ৩

পাবনার চাটমোহরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে স্থানীয় এক স্কুলশিক্ষকসহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকরা হলেন, উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের বোঁথর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে ও স্থানীয় স্কুলের শিক্ষক মামুন হোসেন (২৬), আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আলমগীর (২৩) ও মকবুল হোসেনর ছেলে জগলু (৩৬)।

এ ঘটনায় বাদী হয়ে চাটমোহর থানায় ধর্ষণ ও পর্নগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেছেন ওই নির্যাতিতা নারী ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জানা যায়, বোঁথড় গ্রামের স্থানীয় স্কুল শিক্ষক মামুন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধুলাউড়ী গ্রামের এক গৃহবধূকে (২২) একাধিকবার ধর্ষণ করেন। কৌশলে তাদের অন্তরঙ্গ মূহুর্তের ভিডিও ধারণ করেন মোবাইলে। পরে আলমগীর ও জগলুর মাধ্যমে তা বিভিন্ন মোবাইলে ছড়িয়ে দেন।

চাটমোহর থানার ওসি (তদন্ত) হান্নান মাহমুদ জানান, এ ব্যাপারে চাটমোহর থানায় ধর্ষণ ও পর্নগ্রাফি আইনে একটি মামলা হয়েছে। আসামিদের আটক করে শনিবার পাবনা জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।