কোরবানির পশুর হাট ঘিরে সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি, গ্রেপ্তার ৮

কোরবানির পশুর হাট ঘিরে সক্রিয় হয়ে উঠেছে অজ্ঞান ও মলম পার্টির সদস্যরা। ঢাকার বিভিন্ন পশুর হাটে যাওয়া পশু ব্যবসায়ী ও ক্রেতারাই তাদের টার্গেট। কৌশলে ব্যবসায়ী বা ক্রেতাদের নিজেদের অটোরিকশায় তুলে ঘায়েল করে ফেলে তারা। এরপর অচেতন যাত্রীর টাকা-মোবাইল ফোন নিয়ে তারা উধাও হয়ে যায়। এমনই একটি চক্রের দলনেতাসহ আট সদস্যকে সোমবার গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রাজধানীর লালবাগ এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১০০ পিস চেতনানাশক ট্যাবলেট, তরল স্প্রে, মলম ও মরিচের গুঁড়া উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- রানা শিকদার, জুম্মাত, সোহেল রানা, বিল্লাল, মোহাম্মদ আলী হোসেন, মোহাম্মদ সোহেল, জহুরুল ও মোহাম্মদ হেলাল।

ডিবির লালবাগ বিভাগের কোতয়ালী জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার সাইফুর রহমান আজাদ সমকালকে বলেন, লালবাগ এলাকায় কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে অজ্ঞান ও মলম পার্টির কিছু সদস্যের অবস্থানের খবর পেয়ে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে অজ্ঞান পার্টির দলনেতা রানা সিকদার ও তার সহযোগী জুম্মাতসহ দলের আট সদস্যকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ধোলাইখাল এলাকার পশুর হাটের ক্রেতা-বিক্রেতাদের কৌশলে অজ্ঞান করে সর্বস্ব লুটের উদ্দেশ্যে তারা লালবাগে সমবেত হয়েছিল। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে। সর্বশেষ এ ঘটনায় মঙ্গলবার তাদের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় মামলা করা হয়।