২৩ জানুয়ারি ১৪৭৮ পরিবারে হস্তান্তর করা হবে প্রধানমন্ত্রীর উপহার

জামালপুর প্রতিনিধি: জামালপুরের ৭ উপজেলায় ১৪৭৮টি গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারকে পুনর্বাসনের জন্য ২৩ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হবে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘর ও জমি উপহার।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, ৩১ মে ২০২০ তারিখের ৫০০ নং স্মারকে ‘মুজিববর্ষে দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না’ এই নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্দেশনা বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প হতে জেলার ৭টি উপজেলায় গৃহহীন ও ভূমিহীন ১৪৭৮টি পরিবারকে পুনর্বাসনের জন্য গৃহনির্মাণ ও খাসজমি বন্দোবস্ত করা হয়। প্রথম ও দ্বিতীয় দফায় ‘ক’ শ্রেণির প্রতি পরিবারকে দেয়া হবে দুই শতাংশ জমি ও একটি করে ঘর উপহার। প্রতি ঘর নির্মাণে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। সেই সঙ্গে প্রতিটি ঘর নির্মাণ সামগ্রী পরিবহনের জন্যও পাওয়া গেছে অতিরিক্ত ৪ হাজার টাকা। বরাদ্দকৃত টাকায় ১ হাজার ১শ ২০টি ঘরের নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। বাকি ঘরসমূহের নির্মাণ কাজ সমাপ্তির পথে। ২৩ জানুয়ারি প্রত্যেক উপজেলায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হবে।

তিনি আরও জানান, প্রত্যেক পরিবারকে দুই শতাংশ করে খাসজমি বন্দোবস্ত প্রদানে কবুলিয়ত দলিল সম্পাদন ও খতিয়ান প্রস্তুত করা হয়েছে। এ সমস্ত দলিলাদি সম্বলিত একটি করে ফোল্ডার প্রস্তুত করা হয়েছে। ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে নিজ উপজেলায় স্থানীয় মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, সংসদ সদস্য, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা উপকারভোগীর মাঝে এই ফোল্ডার হস্তান্তর করবেন। হস্তান্তরের পর উপকারভোগীরা জমি ও ঘর ব্যবহার করতে পারবেন।

 

রাজন্য রুহানি
জামালপুর।
২১.০১.২০২১