মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে ৫১ মামলা, গ্রেফতার ১০৯

দেশের সড়ক-মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে ১ জুন থেকে এখন পর্যন্ত ৫১টি মামলার ভিত্তিতে ১০৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আইজিপির নির্দেশে গত ১ জুন থেকে সড়ক-মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে গাড়ি থেকে অবৈধভাবে চাঁদা তোলার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোর অভিযানে ১০৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ও ৫১টি মামলা হয়েছে।

পুলিশ সদর দফতর জানায়, চলতি মাসের শুরুর দিকে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ যানবাহনে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এ লক্ষ্যে সড়ক ও পরিবহন মালিক শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে পুলিশ সদর দফতরে আয়োজিত এক সভায় আলোচনার পর তিনি পুলিশের ইউনিটগুলোকে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। আইজিপি’র নির্দেশনা অনুযায়ী পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলো সড়ক-মহাসড়কে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করে চলেছে। যানবাহনে যেকোনও ধরনের চাঁদাবাজির ঘটনা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে বাংলাদেশ পুলিশের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।