শিশুর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে যা করতে হবে

করোনার তাণ্ডব চলছে সারাবিশ্বে। এতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে বয়স্করা। তবে পিছিয়ে নেই শিশুরাও। যদিও যে কোনো বয়সের মানুষই করোনায় আক্রান্ত হতে পারে। তবে যাদের শরীরে ইমিউনিটি কম তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে এমনটা ভাবা ভুল। তাই করোনার লক্ষণ দেখা দিলে প্রত্যেকেরই সতর্ক হওয়া জরুরি।

স্বাস্থ্যবিষয়ক এক প্রতিবেদনে শিশুদের করোনার লক্ষণ দেখা দিলে কি করা উচিত তা তুলে ধরা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আপনার সন্তানের যদি গলা ব্যথা হয়, সর্দি অথবা জ্বর দেখা যায়, তাহলে চিকিৎসক অথবা স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর কাছে নেয়ার আগে তাদের সঙ্গে ফোনে কথা বলুন। পাশপাশি আপনার সন্তানের মধ্যে যদি করোনার মারাত্মক লক্ষণ যেমন- শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় কিংবা সে অস্বাভাবিক অসুস্থ হয়ে পড়ে তাহলে কাছাকাছি কোনো হাসপাতালে নিতে জরুরি নম্বরে ফোন দিন।

সেখানে আরো বলা হয়, আক্রান্ত বেশিরভাগ শিশুরই খুব সামান্য লক্ষণ দেখা গেছে। এমনকি অনেকের ক্ষেত্রে কোনো লক্ষণই দেখা যায়নি। তবে বয়স্ক ও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা অন্যদের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ কারণে যদি আপনার শিশুর মধ্যে করোনার সামান্য লক্ষণ দেখা দেয় কিংবা সে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে আপনার মনে হয় তাহলে তাকে বাড়িতেই রাখুন। তবে প্রয়োজনে তার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর পরামর্শ গ্রহণ নিশ্চিত করুন।

আপনার ও আপনার সন্তানের মধ্যে শ্বাসতন্ত্রের অন্য সংক্রমণ যেমন- ফ্লু দেখা দিলে দ্রুত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর পরামর্শ নিন। এ সময় শিশুদের বয়স্কদের সংস্পর্শ থেকে অথবা পরিবারে যাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তাদের কাছ থেকে দূরে রাখুন।